কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে দুই ঘণ্টার ব্যবধানে দুই শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তারা দুজনেই ইবির ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের ২০১১-১২ সেশনের শিক্ষার্থী। সহপাঠী ও পরিচতরা বলছেন, মুমতাহেনা মুমু নামের ওই ছাত্রী আত্মহত্যার দুই ঘন্টা পর তার সহপাঠী ও প্রেমিক রোকনুজ্জামান আত্মহত্যা করেছে। পারিবারিকভাবে প্রেমের সম্পর্ক মেনে না নেওয়ায় দুজনেই আত্মহুতি দিয়েছে বলে দাবি করছেন ক্যাম্পাসে তাদের পরিচিতরা।

মুমুর সহপাঠীরা জানান, ইবির আল হাদিস অ্যান্ড ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের চেয়ারম্যান ড. আশরাফুল আলমের মেয়ে মুমু। তার সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে প্রেম ছিল তার সহপাঠী রোকনুজ্জামানের। কিন্তু পরিবার থেকে তাদের প্রেমের সম্পর্ক মেনে নেয়নি। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঝিনাইদহ শহরের ঝিনুক টাওয়ারের পঞ্চম তলায় শোবার ঘরের ফ্যানের সঙ্গে গলায় ওড়না দিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় মুমুর লাশ উদ্ধার করা হয়।  

এদিকে কুষ্টিয়া শহরের পিয়ারাতলার একটি ছাত্রাবাসে থাকতেন রোকনুজ্জামান। রাত সাড়ে ৮টার দিকে সদর উপজেলার মতি মিয়ার রেলগেট এলাকায় পোড়াদহ থেকে ছেড়ে যাওয়া গোয়ালন্দগামী শাটল ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি। তার বাড়ি চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা থানার কার্পাসডাঙ্গা এলাকায়।

ঝিনাইদহ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা (ওসি) শেখ এমদাদুল হক জানান, ‘গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঝিনাইদহ শহরের ঝিনুক টাওয়ারের পঞ্চম তলায় শোবার ঘরে ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস নেওয়া এক ছাত্রীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তদন্ত চলছে।’

পোড়াদহ জিআরপি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল আজিজ জানান, ‘কুষ্টিয়ার সদর উপজেলার মতি মিয়া রেলগেট এলাকায় পোড়াদহ থেকে গোয়ালনন্দগামী ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে এক যুবক আত্মহত্যা করেছে। তার বাড়ি চুয়াডাঙ্গায় এবং সে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স বিভাগের শেষ বর্ষের ছাত্র। ওই ছাত্রের লাশ উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।’

ইতোমধ্যে চুয়াডাঙ্গায় ইবি শিক্ষার্থী রোকনুজ্জামানের জানাজার নামাজ সম্পন্ন হয়েছে এবং সাতক্ষীরায় মুমুর জানাজার নামাজ শুত্রবার বেলা ১২টায় অনুষ্ঠিত হয় বলে তাদের সহপাঠীরা জানিয়েছেন।

এদিকে দুই শিক্ষার্থীর অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক ও সমবেদনা জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. হারুন-উর-রশিদ আসকারী, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. শাহিনুর রহমান ও কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. সেলিম তোহা। বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ অফিস থেকে পাঠানো এক যৌথ শোকবার্তায় তারা বলেন, ‘রোকনুজ্জামান এবং মুমতাহেনার পরিবারের সঙ্গে আজ আমরা বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সদস্যরাও শোকাহত ও ব্যাথিত।’ তারা বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সদস্যদের উদ্দেশে বলেন, ‘জীবনে চলার পথে ঘাত-প্রতিঘাত এবং যে কোনও সমস্যা আসতেই পারে। কিন্তু আত্মহত্যা কোনও সমস্যার সমাধান হতে পারে না। এ ধরনের অকাল মৃত্যু কারও কাম্য নয়।’



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews