বুধবার বাগাতিপাড়া থানার জয়ন্তীপুর গ্রামের বাড়ি থেকে রেহেনা বেগম (৬০) আর লালপুর থানার চংধুপইল গ্রামের বাড়ি থেকে সাবিনা ইয়াসমিন (৩২) নামে এই দুই নারী লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

রেহেনার ছোট ছেলে মাসুদ রানা বলেন, মঙ্গলবার রাতে তার মা খাওয়া-দাওয়া শেষে ঘুমিয়ে পড়েন। ভোরের দিকে কাচ ভাঙার শব্দ শুনে তিনি ও তার স্ত্রী দৌড়ে গিয়ে দুই ব্যক্তিকে অন্ধকারে পালিয়ে যেতে দেখেন।

“আমরা ধাওয়া করেও তাদের ধরতে পারি নাই। পরে আমি মাকে বিছানায় মৃত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখি। মায়ের গলায় ওড়না প্যাঁচানো ছিল। আমার ধারণা চুরি করতে এসে তারা মাকে হত্যা করেছে।”

এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে জানিয়ে বাগাতিপাড়া থানার ওসি আব্দুল মতিন বলেন, পুলিশ ঘটনা তদন্ত করছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

সাবিনা ইয়াসমিনের মৃত্যু সম্পর্কে লালপুর থানার ওসি সেলিম রেজা বলেন, এলাকাবাসীর কাছে খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে চংধুপইল গ্রাম থেকে তার লাশ উদ্ধার করে। লাশের ময়নাতদন্ত হয়েছে। পুলিশ ঘটনা তদন্ত করছে।

এলাকাবাসী জানান, সকালে ডাকাডাকি করে সাবিনার সাড়া না পেয়ে তার পুলিশে খবর দেন। পরে পুলিশ এসে ঘর থেকে তার লাশ উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় তার স্বামী শাহীনুর রহমানকে পুলিশ আটক করেছে বলে জানিয়েছেন লালপুর থানার ওসি সেলিম রেজা।



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews