বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খানের বাসায় কূটনীতিকদের সম্মানে নৈশভোজ আয়োজন করা হয়। এতে অংশ নিয়েছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শরিক দল জেএসডি সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না ও গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী।

বুধবার (১৩ আগস্ট ) সন্ধ্যায় মঈন খানের গুলশান-২ এর বাসায় এ নৈশভোজের আয়োজন করা হয়। রাত ১০টার পর কূটনীতিকদের এ মিলনমেলা শেষ হয়। বিএনপির দায়িত্বশীল সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বৈঠক বিষয়ে জানতে চাইলে অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী বলেন, ‘নির্দিষ্ট কোনও এজেন্ডা ছিল না। তবে সার্বিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। ’

সূত্র জানায়, বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লন্ডন সফরকালে বিবিসি বাংলাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে উঠে আসা বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা হয়। এছাড়া একাদশ সংসদ নির্বাচন নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

অন্য একটি সূত্র জানায়, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে একাদশ সংসদ নির্বাচন বাতিল করে পুনর্নির্বাচনের বিষয়টিও আলোচনায় নিয়ে আসা হয়। তবে কূটনীতিকরা এ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট কোনও কিছু বলেননি।

নৈশভোজে যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়ার হাইকমিশনার, জার্মানি, ফ্রান্স, সুইডেন, সুইজারল্যান্ডসহ বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকরা এবং জাতিসংঘের প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন বলে জানা গেছে।

বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন,  ‘ড. মঈন খানের বাসায় কূটনীতিকদের ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় ছিল।’

বিএনপির চেয়ারপারসন কার্যালয়ের একাধিক নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়, মঈন খানের বাসায় প্রতিবছর অন্তত তিনবার কূটনীতিকদের এ ধরনের আপ্যায়ন করা হয়। ঈদুল ফিতর, ঈদুল আজহা ও গত কয়েক বছর ধরে পহেলা বৈশাখে এ আয়োজন করা হয়।

উল্লেখ্য, বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কারাগারে যাওয়ার আগে প্রতি ঈদেই কূটনীতিকদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করতেন। কিন্তু, তিনি কারাগারে যাওয়া পর থেকে এ আয়োজন করা হয়নি।



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews