বুধবারের এই ঘটনায় একজনকে গ্রেপ্তার করে বৃহস্পতিবার আদালতে পাঠানো হলে ওই তরুণ দোষ স্বীকার করে বিচারকের কাছে জবানবন্দিও দিয়েছে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নয় বছর বয়সী শিশুটির মেডিকেল পরীক্ষার পর তাকে তার মায়ের কাছে তুলে দেওয়া হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

শিশুটিকে ধর্ষণের অভিযোগে ট্রেনের যাত্রীরা মানিক (১৯) নামে ওই তরুণকে আটক করে পুলিশে দেয় বলে কমলাপুর রেলওয়ে থানার এসআই আলী আকবর জানিয়েছেন।

তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “মানিকনগরের বাসিন্দা ওই শিশুটি কমলাপুর স্টেশন ঘুরতে গিয়েছিল। সম্রাট তাকে ফুসলিয়ে একটি ট্রেনে তোলে।

“ট্রেনটি যখন তেজগাঁও স্টেশন পার হচ্ছিল, তখন শিশুটিকে বাথরুমে নিয়ে ধর্ষণ করে সম্রাট। শিশুটির চিৎকারে যাত্রীরা সম্রাটকে আটক করে। পরে তাকে বিমানবন্দর স্টেশন ফাঁড়ির পুলিশের কাছে সোপর্দ করে।”

বৃহস্পতিবার সম্রাটকে আদালতে পাঠানো হলে তিনি স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন বলে জানান রেল পুলিশ কর্মকর্তা আকবর।

তিনি জানান, শিশুটির বাবা নেই, তার মা একটি পোশাক কারখানায় কাজ করেন।



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews