প্রকাশিত : ১৪ জানুয়ারী ২০২০, ০৬:২৮ পি. এম.

Print

অনলাইন রিপোর্টার ॥ পূজার জায়গায় পূজা আর নির্বাচনের জায়গায় নির্বাচন চলবে বলে মন্তব্য করেছেন নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব মো. আলমগীর। ঢাকা সিটি নির্বাচন ৩০ জানুয়ারি থেকে পরিবর্তন করার জন্য রিট আবেদন আদালত খারিজ করে দেওয়ায় শাহবাগে অবরোধ চলছে।

এসব নিয়ে মো. আলমগীর সাংবাদিকদের তার কার্যালয়ে মঙ্গলবার বলেন, আমাদের এ বিষয়ে নতুন করে বক্তব্য নেই। কারণ নির্বাচন কমিশন আইন, সরস্বতী পূজা, এসএসসি পরীক্ষা, সব কিছু বিবেচনায় নিয়ে সর্বোত্তম দিন যেটা, সে দিনটাই ঠিক করা হয়েছে।

‘৩০ জানুয়ারি ঢাকার দুই সিটি ভোট অনুষ্ঠিত হবে। তারা অন্য তারিখে ভোট নেওয়ার দাবি জানিয়েছিল। কমিশন কেন পেছানো সম্ভব নয়, তা ব্যাখ্যা করেছেন। তারা হয়তো সে ব্যাখ্যায় সন্তুষ্ট হতে পারেননি।’

তিনি বলেন, তারা আদালতে গিয়েছেন। আদালত উভয়পক্ষের কথা শুনে তারাও বিবেচনা করে দেখেছেন যে, ৩০ জানুয়ারি সর্বোত্তম দিন। তারা কনভিন্সড, যে কারণে বলেছেন যে ৩০ জানুয়ারি ভোট করতে কোনো বাধা নেই। এক প্রশ্নের জবাবে ইসি সচিব বলেন, পরিস্থিতি অবনতি হবে, কেন এটা বলেছেন তা আমাদের বোধগম্য হয়নি। তারাও যারা ধার্মিক, তারাও জানেন যে, আইন-শৃঙ্খলা মানতে হয়। সবাই সচেতন নাগরিক। নির্বাচন জমে উঠেছে। সবাই নির্বাচনমুখী। আমরা অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা আশা করি না। এরপরও তারা আদালতে গেছেন। যে রায় এসেছে তারাও নিশ্চয় তা মাথা পেতে নেবেন।

‘ভুল-ভ্রান্তি থাকলেও সবাই হয়তো বুঝবে ৩০ জানুয়ারি ভোটের সিদ্ধান্ত বৃহত্তর স্বার্থেই নেওয়া হয়েছে। একটা সুন্দর দিন বেছে নেওয়া হয়েছে। কারোরই কোনো অসুবিধা হওয়ার কথা নয়।’তিনি বলেন, কমিশন যেটা বলেছে, সব স্কুলে কিন্তু পূজা হয় না। বাকি স্কুলে যেখানে পূজা হবে, সে জায়গাটা ছেড়ে দেবে।

আবার সরকারি অনেক অফিস, আদালতেও পূজা হয়। সেখানে অনেক রুম থাকে। তাই যেখানে পূজা হবে, সে রুম ছেড়ে দিয়ে অন্য রুমে নির্বাচনের ব্যবস্থা করা হবে। পূজার জায়গায় পূজা চলবে, নির্বাচনের জায়গায় নির্বাচন হবে।

রংপুর-৩ আসনের উপ-নির্বাচনেও দূর্গাপূজার দশমী ছিল। সেখানে তো কোনো সমস্যা হয়নি। নির্বাচনও হয়েছে, পূজাও হয়েছে একই প্রতিষ্ঠানে পশাপাশি। কোনো সমস্যা তো হয়নি। শাহবাগে অবরোধ করেছে রায়ের পর, পরে কী হতে পারে, কী ব্যবস্থা নেবে ইসি- এমন প্রশ্নের জবাবে মো. আলমগীর বলেন, আদালত যেখানে রায় দিয়েছে, সেখানে আপনাদের-আমাদের-কমিশনের তো কোনো বিষয় নেই।

রায়ের প্রতি তো তাদের শ্রদ্ধাশীল থাকতে হবে। তারা আপিল করলে করতে পারেন। আপিলের রায়ের জন্য অপেক্ষা করতে পারেন। নির্বাচন ও পূজা নিয়ে পক্ষ-বিপক্ষের তো কিছু নেই।

প্রকাশিত : ১৪ জানুয়ারী ২০২০, ০৬:২৮ পি. এম.





Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews