স্বর্ণালঙ্কার কিনলে ক্রেতাকে ৫ শতাংশ হারে ভ্যাট দিতে হয়। এত ভ্যাট ক্রেতারা সহজে দিতে চান না। তাই এ হার ৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে দেড় শতাংশ করার পাশাপাশি স্বর্ণালঙ্কার আমদানি বন্ধের দাবি জানিয়েছে স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের সংগঠন বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)। সোমবার (২ ডিসেম্বর) রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে বার্ষিক সাধারণ সভা ও অভিষেক নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে বাজুস সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগরওয়ালা এই দাবি তুলে ধরেন।

বাজুসের পক্ষ থেকে সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘দীর্ঘদিন পর স্বর্ণ আমদানি নীতিমালা করেছে সরকার। নীতিমালা অনুযায়ী বাংলাদেশ ব্যাংক স্বর্ণের আমদানির বিষয়ে একটি সার্কুলার জারি করেছে। সেখানে স্বর্ণের বারের পাশাপাশি স্বর্ণালঙ্কার আমদানির কথা বলা হয়েছে। বাজুসের দাবি, দেশের ব্যবসায়ী ও কারিগরদের স্বার্থে স্বর্ণালঙ্কার আমদানি যেন না হয়। কারণ, এ মুহূর্তে স্বর্ণালঙ্কার আমদানি হলে দেশের কারিগররা ক্ষতিগ্রস্ত হবে।’

দিলীপ কুমার বলেন, ‘আমরা বিভিন্ন মহল থেকে শুনছি, বিদেশি বিভিন্ন জুয়েলারি ব্র্যান্ড বাংলাদেশে ব্যবসা করতে চাচ্ছে। যেহেতু দীর্ঘদিন পর আমাদের স্বর্ণ নীতিমালা হয়েছে। এই মুহূর্তে যদি বিদেশি কোনও প্রতিষ্ঠান দেশের বাজারে ব্যবসা শুরু করে, তাহলে আমাদের দেশীয় শিল্প বিকাশে বাধাগ্রস্ত হবে। তাই বিদেশি জুয়েলারি প্রতিষ্ঠানকে যেন এখন দেশে ব্যবসা করার অনুমতি না দেওয়া হয়।’

স্বর্ণের কাঁচামাল হিসেবে আমদানি শুল্ক ও স্বর্ণ বিক্রির ওপর ভ্যাট কমানোর দাবি জানিয়ে বাজুসের পক্ষ থেকে বলা হয়, বর্তমানে স্বর্ণ বিক্রির ওপর ৫ শতাংশ হারে ভ্যাট নির্ধারিত আছে। এটা ক্রেতাকে দিতে হয়। ক্রেতা এত বেশি ভ্যাট দিতে চান না। ভোক্তার সুবিধার্থে এ ভ্যাট হার কমিয়ে দেড় শতাংশ করা দরকার।

সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনটির সভাপতি এনামুল হক খান দোলনসহ সংগঠনের নবনির্বাচিত কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews