করোনাভাইরাসের প্রভাবে ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়েছে দেশের দুগ্ধ খামার শিল্প। বর্তমান পরিস্থিতিতে প্রতিদিন ১৫০ লাখ লিটার দুধ অবিক্রীত থেকে যাচ্ছে, যার বাজারমূল্য প্রায় ৫৭ কোটি টাকা। আগামী এক মাস এভাবে চলতে থাকলে প্রায় এক হাজার ৭১০ কোটি টাকার ক্ষতির মধ্যে পড়বে খামারিরা। গতকাল বুধবার বাংলাদেশ ডেইরি ফার্মারস অ্যাসোসিয়েশনের (বিডিএফএ) সভাপতি ইমরান হোসেন ভিডিও কনফারেন্সে এ কথা জানান। রাজধানীর মোহাম্মদপুরে দেশের দুগ্ধ খামার শিল্প রক্ষার্থে বিডিএফএ আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ইমরান বলেন, বর্তমানে দেশে বছরে প্রায় ৯৯ লাখ মেট্রিক টন দুধ উৎপাদন করা হয়, যা মোট চাহিদার প্রায় ৭০ শতাংশ। বর্তমান পরিস্থিতিতে পুরো দেশে প্রতিদিন গড়ে প্রায় ১২০ থেকে ১৫০ লাখ লিটার দুধ অবিক্রীত থাকায় খামারিদের ক্ষতি হচ্ছে প্রায় ৫৭ কোটি টাকা। আগামী এক মাসে এই ক্ষতির পরিমাণ দাঁড়াবে প্রায় এক হাজার ৭১০ কোটি টাকা।

ইমরান হোসেন বলেন, ‘বাংলাদেশে দুগ্ধ প্রসেসর কম্পানিগুলো দেশের মোট উৎপাদনের মাত্র ৫ শতাংশ দুধ প্রতিদিন সংগ্রহ করে থাকে, যার পরিমাণ ১৩ লাখ ৫৯ হাজার লিটার। বাকি দুই কোটি ২৮ লাখ ৩৬ হাজার লিটার দুধ খামারিরা বিক্রি করে বিভিন্ন মিষ্টির দোকানে ও বাসাবাড়িতে। করোনাভাইরাসের কারণে বর্তমানে মিষ্টির দোকান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় দুধ বিক্রি নিয়ে খামারিরা মারাত্মক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে।’



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews