সৌদি আরবে জিয়া পরিবারের এক হাজার ২০০ কোটি ডলার বিনিয়োগ আছে বলে অভিযোগ করেছেন সাবেক বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক। তিনি বলেন, ‘তিন মাস পর পর সৌদি আরবের বিনিয়োগ থেকে মুনাফার টাকা পায় জিয়া পরিবার। এই দস্যুরাই দেশে নির্বাচনে অংশ নিয়ে ক্ষমতায় যেতে চায়। আমি অবিলম্বে খালেদা জিয়ার গ্রেফতার দাবি করছি।’

বৃহস্পতিবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত এক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন। খালেদা জিয়া ও তার পরিবারের বিদেশে পাচার করা অর্থ-সম্পদ দেশে ফেরত আনার দাবিতে ওই মানববন্ধনের আয়োজন করে বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটি।

মানববন্ধনে শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক বলেন, ‘আমি স্মরণ করিয়ে দিতে চাই, সৌদিআরবের রাজা দুর্নীতির বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন। ফলে তিনি তার ১১ ভাইকে দুর্নীতির দায়ে গ্রেফতারও করেছেন। তাদের মধ্যে দুই জন সুনির্দিষ্ট করে জানিয়েছেন, সৌদিআরবের বিভিন্ন ব্যবসায় তারেক রহমান, খালেদা জিয়া, জিয়াউর রহমানের ভাই সাঈদ ইস্কান্দার এবং আরাফাত রহমান কোকোর বিনিয়োগ আছে। এই টাকার পরিমাণ এক হাজার ২শ’ কোটি ডলার। এর সঙ্গে  ৮০ দিয়ে গুণ করলে যে টাকা হয় সেই পরিমাণ টাকা তাদের সেখানে রয়েছে। সেখান থেকে তিন মাস অন্তর এই টাকার মুনাফা পায় জিয়া পরিবার।’

তিনি আরও বলেন, ‘সৌদিতে জিয়া পরিবারের বিনিয়োগের খবর কিন্তু প্রথমে আলজাজিরা টেলিভিশনে প্রচারিত হয়। আমি নিজে ওই প্রতিবেদন দেখেছি। এছাড়া লন্ডনভিত্তিক গার্ডিয়ান পত্রিকায় প্রকাশিত জিয়া পরিবারের বিনিয়োগের প্রতিবেদনও পড়েছি। পরে আমাদের দেশের কয়েকটি পত্রিকায়ও এ খবর প্রকাশিত হয়েছে। জিয়া পরিবারের কেউ কিন্তু এখনও পর্যন্ত বলেনি খবরটি মিথ্যা।’

সাবেক এই বিচারপতি বলেন, ‘আমাদের দেশের মানুষের রক্ত পানি করা এক হাজার ২শ’ কোটি ডলার তারা সৌদিতে বিনিয়োগ করেছে। এর আগেও তারেক জিয়া বিরুদ্ধে ৮০ কোটি ডলার পাচারের অভিযোগ ওঠে। জনগণের রক্ত পানি করা এই টাকা এভাবে বিদেশে পাচার সহ্য করা যায় না। তাই আমি সরকারের কাছে এ বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ এবং পাচার হওয়া টাকা দেশে ফিরিয়ে আনার অনুরোধ জানাচ্ছি। এছাড়া দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কাছে অনুরোধ দ্রুত খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হোক।’

তিনি আরও বলেন, ‘এই দস্যুরা আবারও নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে ক্ষমতায় আসতে চায়। এদেশের জনগণ কখনই তাদের ক্ষমতায় আসতে দেবে না। দেশ থেকে তাদের বিতাড়িত করতে হবে।’

মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন- সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু, আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক ড. হাসান মাহমুদ প্রমুখ।

আরও পড়ুন:
খালেদা জিয়া আত্মস্বীকৃত দুর্নীতিবাজ: হাছান মাহমুদ



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews