জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নতুন করে নির্বাচন দেয়ার যে দাবি করছে জনগনের কাছে তার কোন আবেদন নেই বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘যারা আন্দোলনের মাধ্যমে অরাজকতা সৃষ্টি করতে চায়, সুষ্ঠু নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করতে চায়, জনগণ তাদের প্রত্যাখান করেছে। এখন তারা নানা দাবি উত্থাপন করে নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার যত চক্রান্তই করুক, বাংলাদেশে জনগণের কাছে তাদের দাবির কোনো আবেদন নেই।’

শুক্রবার দুপুরে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের গাজীপুরের চন্দ্রায় চার লেন প্রশস্তকরণের কাজ ও ফ্লাইওভার নির্মাণকাজের অগ্রগতি পরিদর্শনে এসে তিনি এ কথা বলেন।

ঐক্যফ্রন্টের সংলাপের দাবিকে হাস্যকর মন্তব্য করে সড়কমন্ত্রী বলেন, এই নির্বাচনকে যদি তারা মনে করে সঠিক নয়, এটা তারা বলতেই পারে। আমরা বলব, জনগণ নির্বাচনে ভোট দিয়েছে, আওয়ামী লীগ ও শেখ হাসিনাকে বিজয়ী করেছে। এই নির্বাচন নিয়ে সারা পৃথিবীর কোথাও প্রশ্ন নেই। বাংলাদেশেও নেই, জনগণের মধ্যে নেই। তাদেরকেই জনগণ বরং ভোট না দিয়ে প্রত্যাখান করেছে।

ওই সময় তিনি আরো বলেন, সাত দিনের নোটিশ দিয়ে সড়ক ও মহাসড়ক থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হবে। সড়ক পরিবহন মন্ত্রী বলেন, ‘মহাসড়ক থেকে অবৈধ স্থাপনা সরানোর জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এক সপ্তাহের মধ্যে সারাদেশের সড়ক ও মহাসড়ক দখলমুক্ত করা হবে।’

তিনি বলেন, ‘সরকারের অগ্রাধিকার হচ্ছে সড়কে ও পরিবহনে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা। সেজন্য সড়ক ও জনপথ অধিদফতরকে নির্দেশ দিয়েছি, সাত দিনের নোটিশে মহাসড়কের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ও দখলমুক্ত করতে হবে। এখনই এই কাজটি আমাদের করতে হবে। পরে নানা রাজনৈতিক চাপ আসে, চাপের মুখে কাজ করা যায় না।’

এ সময় সড়ক ও সেতুমন্ত্রীর সাথে ঢাকা বিভাগীয় তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী সবুজ উদ্দিন খান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক দিদারে আলম চৌধুরী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আমিনুল ইসলামসহ সড়ক ও জনপথ বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews