ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) বাস থেকে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নাম মুছে ফেলার অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী ‘খালেদা জিয়ার দেওয়া উপহার’ বাস থেকে তার নাম মুছে ফেলেছেন।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের জন্য বেগম খালেদা জিয়া তার শাসনামলে কয়েকটি বাস উপহার দেন। সেসব বাসে উপহার দাতা হিসেবে তার নাম 'বেগম খালেদা জিয়ার উপহার' লেখা ছিল।
নাম মুছে ফেলার সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন স্যার এ এফ রহমান হল ছাত্রলীগ সভাপতি হাফিজুর রহমান, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক শেখ নকিবুল ইসলাম সুমন, সমাজসেবা বিষয়ক সম্পাদক রানা হামিদ, উপপ্রচার সম্পাদক খন্দকার রবিউল ইসলাম রবি, যুগ্ম সম্পাদক সরদার আরিফুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক সাইদুর রহমান উজ্জ্বলসহ বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী।

ঢাবি শাখা ছাত্রলীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক উপ-সম্পাদক মাসুদ আল ইসলামের কাছে অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বাস থেকে বেগম জিয়ার নাম মুছে ফেলার কথা স্বীকার করেন। তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়া এতিমের টাকা আত্মসাৎকারী। তিনি আদালত স্বীকৃত দুর্নীতিবাজ। তার মতো একজন ঘৃণ্য ব্যক্তির নাম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো পবিত্র ক্যাম্পাসে থাকতে পারে না। তাই আমরা তার নাম বাস থেকে মুছে ফেলেছি।’



এ বিষয়ে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগের কাছে জানতে চাইলে তিনি বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমি একথা শুনিনি। যদি কেউ তার (খালেদা জিয়া) নাম বাস থেকে মুছে ফেলে, তাহলে খারাপ কাজ করেনি। কারণ, তিনি এতিমের টাকা আত্মসাৎ করেছেন। তিনি একজন অপরাধী।’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমি এবিষয়ে জানি না। তবে, খোঁজ নিয়ে ভালো করে জানার চেষ্টা করবো।’



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews