মোবাইলফোন। প্রতীকী ছবি।







স্মার্টফোন স্টোর করা তথ্য হাতিয়ে নিতে পারে, এমন ২৯টি বিপজ্জনক অ্যাপকে 'প্লে স্টোর' থেকে মুছে ফেলল গুগল! সম্প্রতি ‘হোয়াইট অপ্স সাতোরি’ নামের একটি থ্রেট ইনটেলিজেন্স সংস্থা এই বিপজ্জনক অ্যাপগুলোকে চিহ্নিত করেছে। এরপরই বিষয়টি গুগলের নজরে আসে।













জানা গেছে, 'প্লে স্টোর' থেকে মুছে ফেলা এই অ্যাপগুলো মূলত ফটো এডিটিং অ্যাপ। এগুলোতে ‘অ্যাড ওয়্যার’ থাকায় তা অনায়াসেই স্মার্টফোনের ক্ষতি করতে সক্ষম। কারণ এই ২৯টি অ্যাপেই রয়েছে ‘ব্লার’ অপশন। সাইবার বিশেষজ্ঞদের মতে, এটাই স্মার্টফোনের তথ্য হাতানোর মূল হাতিয়ার। তাই এই ২৯টি বিপজ্জনক অ্যাপ প্লে স্টোর থেকে ইতোমধ্যেই মুছে ফেলেছে গুগল।













তবে এখন পর্যন্ত প্রায় ৩৫ লাখ মানুষ এই ২৯টি বিপজ্জনক অ্যাপ ডাউনলোড করেছেন নিজেদের মোবাইলে।

সাইবার বিশেষজ্ঞদের মতে, এই অ্যাপগুলো ডাউনলোড হওয়ার পর অনেক সময় স্ক্রিনে সেগুলোর আইকন খুঁজে পাওয়া যায় না। 'প্লে স্টোর' এ গিয়েও এগুলো ওপেন করা যায় না। এই অ্যাপগুলো স্মার্টফোনে হঠাৎ হঠাৎ বিজ্ঞাপন ফুটিয়ে তোলে। এই অ্যাপগুলোর জন্য কখনও কখনও নিজে থেকেই আনলক হয়ে যায় স্মার্টফোন, মোবাইলের ইন্টারনেট ডেটা বন্ধ হয়ে চালু হয়ে যেতে পারে ওয়াই-ফাই। ফোনের অন্যান্য প্রয়োজনীয় অ্যাপকেও আনইনস্টল করে দিতে পারে।







'প্লে স্টোর' থেকে মুছে ফেলা এই অ্যাপগুলোর তালিকায় রয়েছে, ব্লার ফটো এডিটর, সুপার কল ফ্ল্যাশ, ব্লার ইমেজ, ইজি ব্লার, ইমেজ ব্লার, অটো পিকচার কাট, ম্যাজিক কল ফ্ল্যাশ, স্কোয়্যাল ব্লার মাস্টার-সহ বেশ কিছু ফটো অ্যাপ।

অ্যাপগুলোর প্রসঙ্গে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ, এগুলো ইতোমধ্যে ডাউনলোড করা হয়ে গিয়ে থাকলে তা আনইনস্টল করে দেওয়াটাই বুদ্ধিমানের কাজ!

সূত্র- জি নিউজ।

আরও পড়ুন:

জিএ

স্মার্টফোন স্টোর করা তথ্য হাতিয়ে নিতে পারে, এমন ২৯টি বিপজ্জনক অ্যাপকে 'প্লে স্টোর' থেকে মুছে ফেলল গুগল! সম্প্রতি ‘হোয়াইট অপ্স সাতোরি’ নামের একটি থ্রেট ইনটেলিজেন্স সংস্থা এই বিপজ্জনক অ্যাপগুলোকে চিহ্নিত করেছে। এরপরই বিষয়টি গুগলের নজরে আসে।জানা গেছে, 'প্লে স্টোর' থেকে মুছে ফেলা এই অ্যাপগুলো মূলত ফটো এডিটিং অ্যাপ। এগুলোতে ‘অ্যাড ওয়্যার’ থাকায় তা অনায়াসেই স্মার্টফোনের ক্ষতি করতে সক্ষম। কারণ এই ২৯টি অ্যাপেই রয়েছে ‘ব্লার’ অপশন। সাইবার বিশেষজ্ঞদের মতে, এটাই স্মার্টফোনের তথ্য হাতানোর মূল হাতিয়ার। তাই এই ২৯টি বিপজ্জনক অ্যাপ প্লে স্টোর থেকে ইতোমধ্যেই মুছে ফেলেছে গুগল। তবে এখন পর্যন্ত প্রায় ৩৫ লাখ মানুষ এই ২৯টি বিপজ্জনক অ্যাপ ডাউনলোড করেছেন নিজেদের মোবাইলে। সাইবার বিশেষজ্ঞদের মতে, এই অ্যাপগুলো ডাউনলোড হওয়ার পর অনেক সময় স্ক্রিনে সেগুলোর আইকন খুঁজে পাওয়া যায় না। 'প্লে স্টোর' এ গিয়েও এগুলো ওপেন করা যায় না। এই অ্যাপগুলো স্মার্টফোনে হঠাৎ হঠাৎ বিজ্ঞাপন ফুটিয়ে তোলে। এই অ্যাপগুলোর জন্য কখনও কখনও নিজে থেকেই আনলক হয়ে যায় স্মার্টফোন, মোবাইলের ইন্টারনেট ডেটা বন্ধ হয়ে চালু হয়ে যেতে পারে ওয়াই-ফাই। ফোনের অন্যান্য প্রয়োজনীয় অ্যাপকেও আনইনস্টল করে দিতে পারে। 'প্লে স্টোর' থেকে মুছে ফেলা এই অ্যাপগুলোর তালিকায় রয়েছে, ব্লার ফটো এডিটর, সুপার কল ফ্ল্যাশ, ব্লার ইমেজ, ইজি ব্লার, ইমেজ ব্লার, অটো পিকচার কাট, ম্যাজিক কল ফ্ল্যাশ, স্কোয়্যাল ব্লার মাস্টার-সহ বেশ কিছু ফটো অ্যাপ। অ্যাপগুলোর প্রসঙ্গে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ, এগুলো ইতোমধ্যে ডাউনলোড করা হয়ে গিয়ে থাকলে তা আনইনস্টল করে দেওয়াটাই বুদ্ধিমানের কাজ! সূত্র- জি নিউজ। আরও পড়ুন:

ফেসবুকের 'অ্যাভাটার' যেভাবে ব্যবহার করবেন

জিএ



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews