ভারতে গুজরাটের দলিত আন্দোলনের নেতা, আইনজীবী ও তরুণ রাজনীতিক জিজ্ঞেস মেওয়ানি বলেছেন, যৌনতা মানুষের মৌলিক অধিকার। কারও ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে অন্য কারও নাক গলানোর অধিকার নেই।

ভারতের গুজরাটে পতিদার আন্দোলনের নেতা ও তরুণ রাজনীতিক হার্দিক প্যাটেলের ফাঁস হওয়া যৌন ভিডিওর সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই। এ নিয়ে সরব হয়েছেন জিজ্ঞেস মেওয়ানিও।

আজ মঙ্গলবার হার্দিকের পক্ষ নিয়ে এক টুইট বার্তায় জিজ্ঞেস মেওয়ানি লিখেছেন, ‘এতে হার্দিক প্যাটেলের লজ্জা পাওয়ার কিছু নেই। কারণ, যৌনতা মানুষের মৌলিক অধিকার। কারও ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে নাক গলানোর অধিকার কারও নেই।’

এনডিটিভি অনলাইনের প্রতিবেদনে বলা হয়, গতকাল সোমবার গুজরাটের স্থানীয় একটি টেলিভিশন চ্যানেলে ২৪ বছর বয়সী হার্দিক প্যাটেলের ‘যৌন ভিডিও’ নামে একটি ভিডিও চিত্র সম্প্রচার করা হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ভিডিওচিত্রটি চলতি বছরের মে মাসে কোনো একটি হোটেলের গোপন ক্যামেরায় তোলা। ভিডিও চিত্রে হার্দিক প্যাটেলের মতো দেখতে এক ব্যক্তিকে এক তরুণীর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ অবস্থায় দেখা গেছে। ভিডিও চিত্রটি সম্প্রচার হওয়ার পর থেকে তা চলে এসেছে গুজরাট রাজনীতির আলোচনার কেন্দ্রে।

জিজ্ঞেস মেওয়ানি। ছবি: টুইটার থেকে নেওয়াপ্রতিবেদনে আরও বলা হয়, ৯ ও ১৪ ডিসেম্বর গুজরাটে বিধানসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনের আগে হার্দিকের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করতে বিজেপি কৌশলে এই কুৎসা রটাতে পারে বলে ধারণা করছেন অনেকেই।

সপ্তাহ খানেক আগে হার্দিক বলেছিলেন, যেহেতু নির্বাচন সামনে। তাই তাঁকে দমাতে বিজেপি নোংরা কৌশল অবলম্বন করতে পারে। তিনি বলেন, তাঁর বিরুদ্ধে কুৎসা রটাতে যৌন ভিডিও প্রকাশ করা হলেও বিস্ময়ের কিছু নেই।

এ বিষয়ে বিজেপি নেতা ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মনসুখ মান্দাভিয়া বলেন, ‘ফাঁস হওয়া যৌন ভিডিও নিয়ে বিজেপির কিছু করার নেই। এ ধরনের নোংরামি আমরা করি না। তবে যদি হার্দিক বলেন যে এটা ভুয়া, তাহলে কেন তিনি পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করছেন না?’

এক সময় প্যাটেল সম্প্রদায়ের বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠেছিল ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির রাজ্য গুজরাট। নিজের সম্প্রদায়ভিত্তিক পতিদার আনামত আন্দোলন সমিতির (পিএএএস) আহ্বায়ক হার্দিক কংগ্রেসের সমর্থক। এদিকে ৩৬ বছর বয়সী জিজ্ঞেস মেওয়ানি এখনো কংগ্রেসে যোগ না দিলেও দলের পক্ষে কাজ করছেন বলে জানা গেছে।



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews