মঙ্গলবারই #BuildforCOVID19 নামের এই হ্যাকাথনের ঘোষণা দেওয়া হয়। বৃহস্পতিবার থেকে সমস্যা সমাধান জমা নেওয়া শুরু হবে। ফেইসবুক এবং মাইক্রোসফটের পাশাপাশি টুইটার, উইচ্যাট, টিকটক, পিন্টারেস্ট, স্ল্যাক এবং জিফির মতো প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোও এতে অংশ নেবে বলে প্রতিবেদনে জানিয়েছে সিএনবিসি।

প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো “সমাধান জমা দেওয়ার সময়ে প্রতিযোগীদেরকে সমর্থনে বিভিন্ন রিসোর্স দিয়ে সহায়তা করবে।”

হ্যাকাথনের প্রচারণায় এক পোস্টে ফেইসবুক প্রধান মার্ক জাকারবার্গ বলেন, “ব্লাড ডোনেশনস এবং ক্রাইসিস রেসপন্স-এর মতো ফেইসবুক ফিচারগুলো প্রথমে হ্যাকাথনের সময়ই বানানো হয়েছিলো এবং এগুলো এখন বিশ্বজুড়ে লাখো গ্রাহক ব্যবহার করছেন। এটি থেকেও কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রটোটাইপ এবং ধারণা উঠে আসবে বলে আমি আশাবাদী।”

স্বাস্থ্য, দুর্বল জনগণ, ব্যবসা, সমাজ, শিক্ষা এবং বিনোদনের জন্য প্রকল্প তৈরি করতে সফটওয়্যার ডেভেলপারদেরকে উদ্বুদ্ধ করে এই হ্যাকাথন।

হ্যাকাথনের বর্ণনায় বলা হয়, “বিভিন্ন অঞ্চলের বর্তমান আইসোলেশন পরিস্থিতি বিবেচনা করে আমরা একটি অনলাইন স্পেস বানাতে চাই, যেখানে এই সংকট কাটিয়ে উঠতে ডেভেলপাররা ধারণা দিতে, পরীক্ষা করতে এবং সফটওয়্যার সমাধান বানাতে পারবেন।”

প্রকল্প জমা দেওয়ার শেষ তারিখ দেওয়া হয়েছে ৩০ মার্চ। শীর্ষ তিন বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা হবে ৩ এপ্রিল।



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews