একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কঠিন নির্বাচন বলে অভিহিত করেছেন সংসদ সদস্য শেখ হেলাল উদ্দীন। তিনি বলেছেন, ‘একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন আমাদের জন্য কঠিন নির্বাচন। এই নির্বাচনে জয়ী হলে আমরা টিকে থাকবো, না হলে আমরা কেউ থাকবো না’।

বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) বিকালে যশোর জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় তিনি বলেন, ‘দেশ আজ দুটি ভাগে বিভক্ত। এক ভাগে রয়েছে শেখ হাসিনা আর আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি। অন্যপক্ষে রয়েছে বিএনপির নেতৃত্বে স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি। যারা বাংলাদেশের অস্তিত্বকে স্বীকার করে না।’

শেখ হেলাল বলেন, ‘যশোরবাসীর জন্য আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একটা বার্তা নিয়ে এসেছি। তা হলো, ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে সবকিছু ভুলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকা প্রতীককে জেতাতে হবে। সবাইকে মনে রাখতে হবে, আপনি নৌকায় ভোট দিচ্ছেন মানেই আপনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ভোট দিচ্ছেন।’

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলনের সভাপতিত্বে বৃহস্পতিবার বিকালে যশোর পৌর কমিউনিটি সেন্টারে এ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সম্মানিত অতিথি হিসেবে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য পিযুষকান্তি ভট্টাচার্য, বিশেষ অতিথি হিসেবে দলের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সম্পাদক সংসদ সদস্য আব্দুর রহমান, কার্যকরী সদস্য এসএম কামাল, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার বক্তৃতা করেন। 

বর্ধিত সভায় যশোরের ৬টি আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য ও দলীয় মনোনয়ন পাওয়া প্রার্থী কাজী নাবিল আহমেদ, শেখ আফিল উদ্দিন, স্বপন ভট্টাচার্য্য, সংসদ সদস্য মনিরুল ইসলাম, যশোর-২ আসনে মনোনয়ন পাওয়া মে. জে.(অব.) ডা. নাসির উদ্দিনসহ বিভিন্ন উপজেলার নেতারা উপস্থিত ছিলেন। 

এসময় শেখ হেলাল আরও বলেন, ‘প্রাচীন ও বড় দল হিসেবে আওয়ামী লীগ থেকে অনেকেই মনোনয়ন চাইতে পারেন। এটা খারাপ কিছু নয়। কিন্তু সবাইকে মনোনয়ন দেওয়া সম্ভব নয়। স্বাভাবিকভাবেই অনেকেই মনোনয়ন পাননি। এটাকে যদি কেউ খারাপভাবে নেন, তাহলে সেটা ভাল রাজনীতি হবে না। যিনিই মনোনয়ন পান- আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ থাকবো নৌকার পক্ষে।  আমরা এক থাকলে, ঘর ঠিক থাকলে, দল ঠিক থাকলে ইনশাআল্লাহ বাংলাদেশে আওয়ামী লীগকে মোকাবেলা করার শক্তি কারও নেই।’

তিনি বলেন, ‘বড় দলে গ্রুপিং থাকবেই। তাই বলে দলের প্রয়োজনের সময় আপনারা কেউ ভুল সিদ্ধান্ত নেবেন না। নেত্রী আমাদের শেষ আস্থার জায়গা। উনি যে নির্দেশ দেবেন, আমরা সেটা বাস্তবায়ন করবো। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে আপনারা ভাল থাকবেন। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় না থাকলে দেশ ভাল থাকবে না। তাই নৌকাকে বিজয়ী করে আপনারা আওয়ামী লীগকে আবার ক্ষমতায় নিয়ে আসবেন। ইনশাআল্লাহ আগামীতে বাংলাদেশে কেউ আর বিএনপির নাম নেবে না।’ 

তিনি আরও বলেন, ‘আওয়ামী লীগের সবচেয়ে খারাপ সময়েও যশোরবাসী আওয়ামী লীগকে ভোট দিয়েছে। এবারও যশোরবাসী ভুল করবে না।’ 

তিনি জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে আসা দলীয় নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে বলেন, ‘কে মনোনয়ন পেল, সে আপনার লোক না কার লোক, এসব দেখতে যাবেন না। নেত্রী শেখ হাসিনা মনোনয়ন দিয়েছেন। শেখ হাসিনাকে যদি আবার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চান, তাহলে নৌকায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে বিজয়ী করতে



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews