রাখাইন থেকে পালিয়ে আসা চার রোহিঙ্গাকে মিয়ানমারে ফেরত পাঠিয়েছে ভারত। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য হিন্দু জানায়, বৈধ নথি না থাকায় তাদের আটক রাখা হয়েছিলো। মঙ্গলবার তাদের কারামুক্ত করার পর মিয়ানমারে ফেরত পাঠানো হয়।

২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট রাখাইনের কয়েকটি নিরাপত্তা চৌকিতে হামলার পর পূর্ব-পরিকল্পিত ও কাঠামোবদ্ধ সহিংসতা জোরালো করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। হত্যা-ধর্ষণসহ বিভিন্ন ধারার সহিংসতা ও নিপীড়ন থেকে বাঁচতে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর প্রায় সাত লাখের মতো মানুষ। সেনাবাহিনীর নির্যাতন থেকে বাঁচতে বিভিন্ন সময় ভারতেও আশ্রয় নিয়েছে অনেক রোহিঙ্গা। এখনও দেশটিতে প্রায় ৪০ হাজার রোহিঙ্গা আশ্রয় নিয়েছে।

মঙ্গলবার মিয়ানমারের বুথির্ড শহরের থানায় তাদের হস্তান্তর করা হয়। কর্মকর্তারা জানান তাদের নাম মোহাম্মদ ইউনুস (২৩), মোহাম্মদ আব্দুল আমিন (৪), মোহাম্মদ হুসেইন (১৯) ও মোহাম্মদ সোফি (২৬)।

তারা বিভিন্ন সময় ভারতে অনুপ্রবেশ করেছিলো। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশের পর একটি পুলিশ বহরতাদের সীমান্তবর্তী শহর মোরেহতে নিয়ে যায়। সেখানেই মিয়ানমার কর্মকর্তাদের কাছে তুলে দেওয়া হয় রোহিঙ্গাদের।

ভারতের গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর হিসাবমতে, গত বছর পর্যন্ত দেশটিতে প্রায় ৪০ হাজার রোহিঙ্গা মুসলিম বাস করছেন। তাদের মধ্যে জম্মু ও কাশ্মিরে ৭ হাজার ৯৬ জন, হায়দরাবাদে ৩ হাজার ৫৯ জন, হরিয়ানায় এক হাজার ১১৪ জন, উত্তর প্রদেশে এক হাজার ২০০ জন, দিল্লিতে এক হাজার ৬১ জন ও জয়পুরে ৪০০ জন অবস্থান করছেন।

২০১৭ সালে ভারতে অবস্থানকারী সব রোহিঙ্গাকে নিজ দেশে ফেরত পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেয় ভারত। তবে বিষয়টি নিয়ে আদালতে রিট হলে মানবিক দিক বিবেচনা করে তাদের না তাড়ানোর রায় হয়। 



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews