গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে নসিমনের সংঘর্ষে পাঁচ শ্রমিক নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন সাতজন। 

আজ শুক্রবার সকাল আটটার দিকে কাশিয়ানী উপজেলার পোনা বাস স্ট্যান্ডে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
দুর্ঘটনায় নিহতরা হলেন কাশিয়ানী উপজেলার পারুলিয়া ইউনিয়নের পারুলিয়া গ্রামের বদির (৩০), মিজান (৪৩), সুমন (২৮), সিরাজুল মোল্লা (৪০)। বাকি একজনের (৪০) নাম জানা যায়নি।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানিয়েছেন, খুলনা থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী ফাল্গুনী পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস ঘটনাস্থলে পৌঁছালে লিংক রোড থেকে হাইওয়েতে ওঠার সময় একটি শ্রমিকবাহী নসিমনের সঙ্গে সংঘর্ষ ঘটে। এতে ঘটনাস্থলে মিজান নামে এক শ্রমিক নিহত হন ও ১১ জন শ্রমিক গুরুতর আহত হন।

পরে ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ ও স্থানীয়রা গুরুতর আহতদের উদ্ধার করে কাশিয়ানী উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে বদির ও সুমন মারা যান। গুরুতর আহত নয়জনকে কাশিয়ানী উপজেলা হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। ছয়জনকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে অজ্ঞাত একজন (৪০) এবং গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে সিরাজুল মোল্লা (৩০) নামে আরেকজন মারা যান।

পারুলিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মকিমুল ইসলাম জানান, নিহত ও আহত শ্রমিকেরা সবাই আমার ইউনিয়নের বাসিন্দা। তারা সবাই নির্মাণ শ্রমিক । আজ সকালে কাজে যাওয়ার উদ্দেশে বাড়ি থেকে বের হয় তারা । নসিমনে করে তারা কাজে যাচ্ছিল। পোনা বাস স্ট্যান্ডে নসিমনটি পৌঁছালে বাইপাস সড়ক থেকে মহাসড়কে উঠলে গোপালগঞ্জ থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে আসা ফাল্গুনী পরিবহন নসিমনকে ধাক্কা মারলে নসিমনে থাকা শ্রমিকদের মধ্যে দুজন ঘটনাস্থলে নিহত হয় । পরে হাসপাতালে নেওয়ার পর আরও তিনজন মারা যায়।

কাশিয়ানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আজিজুর রহমান রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews