খেলাপি ঋণের হিসেবে পৃথিবীর অনেক দেশের তুলনায় আমরা অনেক ভালো অবস্থায় আছি বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন। তিনি বলেন, ‘এটার (খেলাপি ঋণ) সমাধান করা খুব কঠিন বলে মনে করি না। ফর্মুলা রয়েছে, যার মাধ্যমে এটাকে সমাধান করা যায়।’

বুধবার (৬ ডিসেম্বর) ঢাকার একটি হোটেলে বিআইডিএস আয়োজিত দু’দিনব্যাপী ‘রিসার্চ এলামনাক ২০১৭’ শীর্ষক সম্মেলনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিআইডিএস মহাপরিচালক কে এ এস মুর্শিদ।

এসময় ফরাসউদ্দিন বলেন, ‘বাংলাদেশের ব্যাংকিং খাত এত সম্প্রসারিত হয়েছে যে, নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ ব্যাংক তার অর্ধেকও সম্প্রসারিত হয় নি।’

তিনি আরও বলেন, ‘স্বাধীনতার পর আমাদের অর্জনের পাল্লাটা বেশ ভারী। ৩ বিলিয়ন ডলারের অর্থনীতি এখন ২৫০ বিলিয়নে উন্নীত হয়েছে। ৭৮৬ কোটি টাকার বাজেট আজ ৪ লাখ ২৬৬ কোটি টাকায় উঠেছে।’

মাথাপিছু আয়ে পাকিস্তানকে ছাড়িয়ে যাওয়া অবশ্যই কৃতিত্বের উল্লেখ করে ফরাসউদ্দিন আরও বলেন, ‘আমাদের মাথা পিছু আয় পাকিস্তানের চেয়ে ৬৮ ডলার বেশি এবং এটা বাড়তে থাকবে। কারণ আমাদের জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ১ দশমিক ৩ শতাংশ, আর পাকিস্তানের ২ দশমিক ৫ শতাংশ। বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) তথ্য নিয়ে যারা সন্দেহ করেন, তাদের জন্যেও এটা একটা জবাব।’

বিবিএস এর ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘অনেকে বলেন, বিবিএস মিথ্যা তথ্য দেয়। অথচ এখানে আমরা দেখলাম, সর্বশেষ হিসাবে বিবিএস বলেছে বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় ১৫১০ ডলার, আর ইকোনমিস্ট বলছে ১৫৩৮ ডলার।’

বাংলাদেশের ভবিস্যত বাজার প্রসঙ্গে ফরাসউদ্দিন বলেন, ‘আগামীতে বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বাজারই মূল বাজার হয়ে উঠতে পারে। এটা নিয়ে গবেষণা চালানো প্রয়োজন।’

রফতানি বহুমুখীকরণে জোর দিয়ে পণ্যমান নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা বিএসটিআইকে বিশ্বমানে উন্নীত করার পরামর্শ দিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘যদি এ ধরনের প্রতিষ্ঠানকে বিশ্বমানে উন্নীত করা যায়, তাহলে আমরা অনেক মধ্যস্বত্বভোগীর কাছ থেকে পরিত্রাণ পেতে পারি।’

শতভাগ সরকারি উদ্যোগে বিদ্যুৎ উৎপাদনের পরামর্শ দিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের এ সাবেক গভর্ণর বলেন, ‘বেসরকারি সেক্টরকে এ দায়িত্ব দেওয়া উচিৎ নয়। কারণ যিনি আজ  সরকারের বন্ধু, সরকার পরিবর্তন হলে তিনি যে সরকারের বিপক্ষের লোক হয়ে যাবেন না তার কোনও নিশ্চয়তা নেই। তাই আমি মনে করি, এই একটি সেক্টরে সরকারের প্রাধান্য থাকা উচিৎ।’

এ প্রসঙ্গে দেশের গ্যাস কোম্পানিগুলোকে জাতীয়করণ করার উদাহরণ দিয়ে ফরাসউদ্দিন আরও বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু যদি ১৯৭৩ সালে গ্যাস কোম্পানিগুলোকে জাতীয়করণ না করতেন তাহলে আজ  কী অবস্থা হতো, তা চিন্তা করা যায় না।’ বাংলাদেশের সম্ভাবনাময় শিল্প হিসেবে চামড়া, ওষুধ, সিরামিক, পর্যটন, খেলাধুলার সরঞ্জাম ও মোটরসাইকেলের সঙ্গে পাটের সুদিন ফিরে আসার কথাও বলেছেন তিনি।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা মসিউর রহমান বলেন, ‘আমাদের ভবিষ্যৎ উন্নতির জন্য দক্ষতা বাড়ানোর পাশাপাশি জ্ঞাননির্ভর প্রশাসন দরকার। বর্তমানে আমাদের অর্থনীতি সেভাবে পরিচালিত হচ্ছে না।’ এসময় রেমিটেন্সের অর্থ বিনিয়োগ করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

এসময় সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইদুজ্জামান বলেন, ‘খেলাপি ঋণের বিষয়ে কর্তৃপক্ষ যথাযথ ব্যবস্থা নিচ্ছেন না। দাতাদের প্রতিশ্রুত অর্থ ছাড় নিশ্চিত করার পাশাপাশি তার যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিত করার ওপর গুরুত্ব দিতে হবে।’ মধ্য ও উচ্চ আয়ের দেশে পৌঁছাতে হলে অবশ্যই বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের বর্তমান পরিস্থিতির উন্নয়ন করতে হবে। এক্ষেত্রে দক্ষ মানব সম্পদ তৈরির কোনও বিকল্প নেই বলেও মন্তব্য করেন তিনি।



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews