গলওয়ান উপত্যকায় চীনের অনুপ্রবেশের পর, জাপান-আমেরিকা-অস্ট্রেলিয়া-ভারত— এই চর্তুদশীয় অক্ষ বা কোয়াড-কে সামরিক চেহারা দেওয়া নিয়ে ভাবনা-চিন্তা শুরু হয়েছে। এ ব্যাপারে সুস্পষ্ট ইঙ্গিত দিয়েছে আমেরিকা। 

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রের বক্তব্য, লাদাখের কাছে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার ওপর এই মুহূর্তে সবচেয়ে বেশি সামরিক নজর থাকলেও একইভাবে ভারত মহাসাগর নিয়েও উদ্বিগ্ন দিল্লি। গত এক বছরে সেখানে নজরদারি এবং আধিপত্য ক্রমশ বাড়ানোর চেষ্টা করছে বেইজিং। গলওয়ানে সংঘর্ষের কয়েক দিন আগেই পিএলএ’র নৌবাহিনী ভারত মহাসাগরে দু’টি ক্ষেপণাস্ত্র নিরোধক ব্যবস্থা মজুত করা জাহাজ ছাড়ে। ওই একই এলাকায় পানির তলায় কাজ করতে পারে এমন এক ঝাঁক ড্রোনও চীন সম্প্রতি ছেড়েছে— এই রিপোর্ট নিয়েও উদ্বিগ্ন ভারত। 

আন্দামান ও নিকোবরের কাছে ভারতের নিজস্ব ইকনমিক জোনের মধ্যে গত বছরের নভেম্বরে একটি চীনা জাহাজকে ধাওয়া করেছিল ভারত। চীন সে সময় বলে, জলদস্যুদের পাহারা দেওয়ার জন্যই মাঝে মাঝে টহলদারি দেওয়া হয়। কিন্তু তাতে সংশয় কাটেনি ভারত ও জাপানের মতো দেশের। সূত্র: আনন্দবাজার

বিডি প্রতিদিন/কালাম



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews