গুগলের সঙ্গে জোট বাঁধা ওই প্রতিষ্ঠান তিনটি হলো, ইসেট, লুকআউট এবং জিম্পোরিয়াম- প্রতিবেদনে জানিয়েছে  প্রযুবিষয়ক সাইট ভার্জ।

বর্তমানে আড়াইশ’ কোটিরও বেশি ডিভাইসে চলছে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম। গুগলের মতে, ব্যবহারকারীর সংখ্যা এতো বেশি হওয়ায় সাইবার অপরাধীদের লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হয়েছে গুগল প্লে স্টোর।

ক্ষতিকর অ্যাপের মধ্যে লুকোনো ম্যালওয়্যার বা গোপন কোডের সাহায্যে ব্যবহারকারীর সংবেদনশীল ডেটা হাতিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করা হয়।

ভার্জ উল্লেখ করেছে, বিষয়গুলো নিয়ে এরই মধ্যে পদক্ষেপ নেওয়া শুরু করেছে গুগল।  এ ধরনের অ্যাপ ছড়ানোর ঘটনায় বেশ কিছু ডেভেলপারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থাও নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

ক্ষতিকর অ্যাপের হাত থেকে অ্যান্ড্রয়েডকে বাঁচাতে গুগল ইতোমধ্যেই ‘গুগল প্লে প্রোটেক্ট’ নামের ‘ম্যালওয়্যার সুরক্ষা সেবা’ চালু করেছে। প্রতিষ্ঠানটির দাবি, ‘গুগল প্লে প্রোটেক্ট সেবার মাধ্যমে প্রতিদিন শত কোটি অ্যাপ স্ক্যান করা হচ্ছে।’ 

কিন্তু  তাতেও সন্তোষজনক ফলাফল আসছে না। সমস্যার পরিধি এতোই বড় যে গুগলকে সক্ষমতা বাড়ানোর জন্য এবার জোট বাঁধার সিদ্ধান্তই নিতে হয়েছে। 

এক দিক থেকে দেখলে বিষয়টি ভালোই হয়েছে। একাধিক নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান যদি অ্যাপের পরীক্ষা-নিরীক্ষার দায়িত্ব হাতে নেয়, তাহলে ব্যবহারকারী বেশ নিরাপদেই অ্যাপ স্টোরের সেবা নিতে পারবেন- বলা হয়েছে ভার্জের প্রতিবেদনে



Contact
reader@banginews.com

Bangi News app আপনাকে দিবে এক অভাবনীয় অভিজ্ঞতা যা আপনি কাগজের সংবাদপত্রে পাবেন না। আপনি শুধু খবর পড়বেন তাই নয়, আপনি পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে উপভোগও করবেন। বিশ্বাস না হলে আজই ডাউনলোড করুন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি।

Follow @banginews